রাসেলস ভাইপার ভেবে ২৯ বাচ্চাসহ’ পাইন্না সাপ’ হত্যা

নীলফামারীর জলঢাকায় রাসেলস ভাইপার ভেবে পাইন্না সাপকে হত্যা করেছেন স্থানীয়রা। এ সময় তারা সাপটির ২৯টি বাচ্চাও মেরে ফেলেন। মেরে ফেলা সাপটির নাম সাইবোল্ডের পাইন্না। সোমবার জলঢাকার কৈমারী ইউনিয়নের আলসিয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মেরে ফেলা সাপটির নাম সাইবোল্ডের পাইন্না। মঙ্গলবার (২৫ জুন) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রংপুর বন বিভাগের কর্মকর্তা বন্যপ্রাণী ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা স্মৃতি সিংহ রায়।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে কৈমারী ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ড সদস্য হাফিজুল ইসলাম বলেন, সোমবার দুপুরে কয়েকজন যুবক তিস্তা নদীতে গোসল করতে গিয়ে একটি সাপ দেখতে পান। পরে তারা আশপাশের লোকজনকে খবর দিলে এলাকাবাসী এসে বিষধর রাসেলস ভাইপার ভেবে সাপটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেন। এ সময় সাপটির পেট থেকে ২৯টি বাচ্চা বের হলে বাচ্চাগুলোও মেরে ফেলেন তারা।

এ বিষয়ে বন্যপ্রাণী ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা স্মৃতি সিংহ রায় বলেন, জলঢাকায় স্থানীয়রা যে বাচ্চাসহ যে সাপটিকে মেরে ফেলেছেন সেটি রাসেলস ভাইপার নয়, এটি সাইবোল্ডের পাইন্না সাপ। এটি মৃদু বিষধর যা মানুষের জন্য ক্ষতিকর নয়। মেরে ফেলা সাপটির সঙ্গে রাসেলস ভাইপারের কোনো সাদৃশ্য নেই। এই এলাকায় এখনো রাসেলস ভাইপারের ট্রেস পাওয়া যায়নি।

Leave a Comment